এই নিয়েছে ঐ নিল যাঃ! কান নিয়েছে চিলে

আমরা আগামী প্রজন্মের জন্য কি রেখে যাচ্ছি?
কখনো কি পদ্মা সেতু নিয়ে অনলাইনে সার্চ করেছেন? পদ্মা সেতু নিয়ে সার্চ ইঞ্জিনে অনুসন্ধান করলে দেখতে পাবেন “পদ্মা সেতুতে মানুষের মাথা লাগবে” এধরনের অসংখ্য বিষয়ের লক্ষ লক্ষ গুজবের নিবন্ধ জমা পড়েছে। আমারা আজ যা রেখে যাচ্ছি আগামী প্রজন্ম তা ভোগ করবে, সেটা যেমন ভালো যেকোনো বিষয় হতে পারে তেমনি মন্দ বিষয়ের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য। আমাদের সৃষ্ট এই গুজবগুলোর জন্য আগামী প্রজন্মকেও লজ্জিত হতে হবে। আর আমরা তা হতে দিতে পারিনা।

আজ দেশ যখন দৃঢ় মনোবল নিয়ে উন্নতির শীর্ষে এগিয়ে যেতে ব্যস্ত তখন আমরা গুজবের জঞ্জালে জড়িয়ে দেশের উন্নয়নের পথে নতুন নতুন বাধার সৃষ্টি করছি আর এরকম গুজবে বিশ্বাস করে দেশে একের পর এক বেঁধে গেছে লঙ্কাকাণ্ড।

এই নিয়েছে ঐ নিল যাঃ! কান নিয়েছে চিলে, 
চিলের পিছে মরছি ঘুরে আমরা সবাই মিলে।
কানের খোঁজে ছুটছি মাঠে, কাটছি সাঁতার বিলে,
আকাশ থেকে চিলটাকে আজ ফেলব পেড়ে ঢিলে।…

শামসুর রাহমানের ‘পণ্ডশ্রম’ কবিতায় তার বিষদ বর্ণনাই রয়েছে। যাচাই-বাছাই না করে বেশির ভাগ সময়ে শোনা কথাকে আমরা বেশি গুরুত্ব দিই।
কিন্তু আর কতো ??? এভাবে নিশ্চই চলতে পারে না, প্রয়োজন আমাদের দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তনের, প্রয়োজন সচেতনতার। সামাজিক মাধ্যমে একটি ছবি, অডিও বা ভিডিও দেখেই তা সত্যি বলে গ্রহন করার যৌক্তিকতা নেই। যেকেউ আপনাকে বিভ্রান্ত করতেই পারে কিন্তু সৃষ্টিকর্তা এজন্য মানুষকে বুদ্ধিমত্তা সহ বড় একটি মাথা দিয়েছেন তা নিশ্চই কাজে লাগানো উচিৎ।
তাই আসুন সবসময় তথ্যের নির্ভরযোগ্য সুত্র অনুসন্ধান করি এবং গুজবমুক্ত একটি সুন্দর সমাজ গড়ে তুলি।

চিলে কান নিয়ে গেছে লোকমুখে শুনে চিলের পেছনে দৌড়াবেন, নাকি আগে কানে হাত দিয়ে দেখবেন? সে সিদ্ধান্ত আপনার।

Related Blogs

Leave us a Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.